রবিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২১ইংরেজী, ৮ কার্তিক ১৪২৮ বাংলা

শিরোনাম : শোকজের জবাবে সন্তুষ্ট নন প্রধানমন্ত্রী, দলীয় পদ হারাচ্ছেন জাহাঙ্গীর আলম! শ্রীপুরে কাভার্ডভ্যান চাপায় শিশু নিহত, এক ঘন্টা শ্রীপুর-মাওনা সড়কে যান চলাচল বন্ধ ওসি পরিচয়ে হামেশা নারী নির্যাতন করে আসছে সোহরাব কালিয়াকৈর পৌরমেয়র নির্বাচনে রেজাউলের প্রার্থী ঘোষণা গাজীপুর শিল্পকলা একাডেমির বিরুদ্ধে অভিযোগ শার্শায় দুর্যোগ প্রশমন দিবস পালিত শার্শায় জামাইয়ের হাতে শশুর খুন বেনাপোল বন্দরে দেড় বছর পর পণ্যবাহী ট্রাক স্ক্যানিং কার্যক্রম শুরু ভারতের পেট্রাপোলে ৩ পিছ স্বর্ণের বারসহ বাংলাদেশি ট্রাক ড্রাইভার আটক ব্রির উদ্ভাবিত ধানের নতুন জাত বঙ্গবন্ধু ধান ১০০’ জাতির পিতা ও শেখ হাসিনার প্রতিকৃতি গড়লেন ভাস্কর আ

অর্থের অভাবে মেডিকেল কলেজে ভর্তি হতে পারচ্ছে না মিজানুর রহমান

তমাল কান্তি রায়, লালমনিরহাট

২০২১-০৪-০৭ ০৬:৫৩:২১ /

অর্থের অভাবে মেডিকেল কলেজে ভর্তি হতে পারচ্ছে না মিজানুর রহমান। লালমনিরহাটের ধরলা নদীর চরাঞ্চলের অদম্য মেধাবী শিক্ষার্থী মিজানুর রহমান মেডিকেল কলেজে ভর্তির সুযোগ পেয়েও অর্থের অভাবে ভর্তি হতে পারছে না। মিজানুর রহমান ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষে এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষায় শেরে-বাংলা মেডিকেল কলেজে ভর্তির সুযোগ পান। জানা গেছে, লালমনিরহাট সদর উপজেলার কুলাঘাট ইউনিয়নের কুলাঘাট গ্রামের মৃত মফিজ উদ্দিনের ছেলে মিজানুর রহমান। ধরলা নদীর চরাঞ্চলের শিক্ষার্থী মিজানুর এবার মেডিকেল কলেজে ভর্তির সুযোগ পেয়েছেন। অথচ অর্থাভাবে সে সুযোগ অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। সে গোল্ডেন জিপিএ-৫ পেয়ে উপজেলার কুলাঘাট ইউনিয়নের চর কুলাঘাট উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি ও লালমনিরহাট সরকারী কলেজ থেকে জিপিএ-৫ পেয়ে এইচএসসি পাস করেন। ২০১২ সালে মারা যায় মিজানুরের বাবা মফিজ উদ্দিন। তখন সে ষষ্ঠ শ্রেনীর শিক্ষার্থী। ছয় সন্তানকে নিয়ে চরম অর্থাভাবে পড়ে মা জোবেদা বেগম। জায়গা জমি বলতে কিছুই নেই। মাত্র ৮ শত জমির উপর বসতঘর। ধার-দেনা, মায়ের মুষ্টির চাল আর অন্যের সাহায্য সহযোগিতায় এতদূর এগুতে পারলেও এখন অনিশ্চয়তায় পড়েছেন সে। মেডিকেলে ভর্তি ফি ও আনুষাঙ্গিক খরচসহ পাঁচ বছরের পড়াশুনায় প্রচুর অর্থের প্রয়োজন। মা জোবেদা বেগম বলেন, বাহে, হামার কিচ্ছু নাই। না খেয়ে ছেলেকে পড়ালেখা করাইছি। এলাকাসাবীর সহযোগিতায় সবার ছোট ছেলেকে পড়াশুনা করে এত দুর নিয়ে আসছি। ডাক্তারী পড়া এত টাকা হামা কই পামো? এখন ডাক্তারী ভর্তি, প্রতি মাসের টাকা এখন কিভাবে যোগাড় হবে তা নিয়ে তিনি চিন্তায় নির্ঘুম রাত কাটছে। তিনি সমাজের বিত্তশীল লোকদের সহযোগিতা চান। চর কুলাঘাট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও কুলাঘাট ইউপি চেয়ারম্যান ইদ্রিস আলী জানান, নিজের চেষ্টায় ও সবার সহযোগিতায় মিজানুর এত দুর এগিয়েছে। মেডিকেলে পড়তে যে খরচ হবে তার যোগান দেওয়া কষ্টকর হবে ওই পরিবারের। অত্র ইউনিয়নের মধ্যে মিজানই প্রথম মেডিকেল কলেজ শিক্ষার্থী। মেধাবী এই শিক্ষার্থী মিজানুর রহমান বলেন, নবম শ্রেণি থেকে টিউশনি আর ধার দেনা করে পড়াশুনা চালিয়ে আসছি। এখন কোন সংস্থা যদি আমার পড়াশুনার জন্য এগিয়ে আসে তাহলে চিকিৎসক হয়ে বন্যাপীড়িত এই ইউনিয়নের দরিদ্র মানুষদের পাশে থাকতে চাই। পাশাপাশি মায়ের স্বপ্ন পূরনে তিনি বিত্তবানদের সহযোগিতা চান।

এ জাতীয় আরো খবর

শৈল্পিক নিদর্শন বাবুই পাখির বাসা

শৈল্পিক নিদর্শন বাবুই পাখির বাসা

পঞ্চগড় বাসিকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন আবুল কালাম আজাদ

পঞ্চগড় বাসিকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন আবুল কালাম আজাদ

রংপুর গ্রুপের উদ্যোগে সুবিধা বঞ্চিত শিশুরা পেল নতুন জামা

রংপুর গ্রুপের উদ্যোগে সুবিধা বঞ্চিত শিশুরা পেল নতুন জামা

ঈদের রূপচর্চা শেষ মুহূর্তে রূপগঞ্জে সেলুন-পার্লারে ব্যস্ততা

ঈদের রূপচর্চা শেষ মুহূর্তে রূপগঞ্জে সেলুন-পার্লারে ব্যস্ততা

রূপগঞ্জের ‘গরীবের গোস্ত সমিতি’ এখন ধনীরাও করে

রূপগঞ্জের ‘গরীবের গোস্ত সমিতি’ এখন ধনীরাও করে

রূপগঞ্জে ৫ হাজার হতদরিদ্রদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী  বিতরণ

রূপগঞ্জে ৫ হাজার হতদরিদ্রদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ