মঙ্গলবার, ৭ ডিসেম্বর ২০২১ইংরেজী, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বাংলা

বাঘিয়া স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন নিয়ে চলছে লিটন মাস্টারের ভেলকিবাজি

এম রানা

২০২১-১১-০৪ ১২:১৩:১০ /

গাজীপুর মহানগরীর কোনাবাড়ি বাঘিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন নিয়ে চলছে লিটন মাস্টারের ভেলকিবাজি। বৃহস্পতিবার বিকেলে জানা গেছে, ওই বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মোঃ সাইফুল ইসলাম লিটন নিরপক্ষ ভূমিকা পালন না করে তাঁর নেতৃত্বে সহকারি শিক্ষক মোঃ রকিব হোসেন, ক্রীড়া-শিক্ষক মোঃ শহিদুল ইসলাম ও সহকারি শিক্ষক মোঃ আরিফসহ তাঁরা সরাসরি একটি প্যানেলের হয়ে ভোট চাচ্ছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ নিয়ে প্রতিপক্ষ প্যানেলের প্রার্থী মোঃ আওয়াল সরকার, মোঃ জুলহাস উদ্দিন শাওন, কিশোর কুমার মজুমদার, মোঃ সেলিম মোস্তাফা ও রিনা বেগমসহ এলাকাবাসীরা অভিযোগ তুলেছেন। অভিযোগে জানা গেছে, ওই বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মোঃ সাইফুল ইসলাম লিটনের নেতৃত্বে, সহকারি শিক্ষক মোঃ রকিব হোসেন ও ক্রীড়া শিক্ষক মোঃ শহিদুল ইসলাম ও সহকারি শিক্ষক আরিফসহ তাঁদের মনোনীত প্রার্থী মোঃ নুরুল ইসলাম, মোঃ সামান উদ্দিন, মোঃ সোহেল রান, মোঃ মোবারক হোসেন ও আয়শা আক্তার প্যানেলের পক্ষ নিয়ে প্রকাশ্যে ভোট চাচ্ছেন এবং বিভিন্ন এলাকায় গিয়ে ব্যালেট পেপার বিলি করছেন। তবে ওই বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক সাইফুল ইসলাম লিটন বিষয়টি অস্বীকার করেছেন। লিটন বিষয়টি অস্বীকার করেছেন। নাম প্রকাশ না করার শর্তে বেশ কয়েকজন ছাত্র-ছাত্রীরা জানান, প্রধান শিক্ষক লিটন স্যার, রকিব স্যার ও শহিদুল স্যার ও আরিফ স্যার তাঁরা আমাগো ক্লাসে ভোট চাইছেন এবং ব্যালট পেপার হাতে দিছেন বাবারে দিতে, ভোটও দিতে কইছেন। নাম প্রকাশ না করার শর্তে ওই বিদ্যালয়ের এক অভিভাবক জানান, ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক লিটন মাস্টারের নেতৃত্বে বেশ কয়েকজন মাস্টার আইয়া গেছে, তাঁরাতো আমাকে কাছে ভোট চাইছে, বিভিন্ন শর্ত দিয়া গেছে, আমাগো ছেলেদের পাস করাইয়া দিবো। ওই অভিভাবক আরো জানান, তারাতো নুরুল ইসলাম প্যানেলের পক্ষে কাজ করতাছে, ভোট না দিলেতো পোলাপানের সমস্যা করবো। এছাড়াও তাঁরা শ্রেণিকক্ষে গিয়ে কমলমতি শিক্ষার্থীদের হাতে হাতে ব্যালট পেপার ধরিয়ে দিয়ে নানা লোভলালোসা দেখাচ্ছেন ছাত্রছাত্রীদেরকে। অভিভাবকদের ভোট দিতে উদ্বোধ করাচ্ছেন। লিটন মাস্টারের মনোনীত প্রার্থীদের ভোট না দিলে আগামি পরীক্ষায় ৫০ মার্ক করে কমিয়ে দেয়ার হুমকী প্রদান করা হয়েছে ছাত্র ছাত্রীদের অভিযোগ। শিক্ষকদের মনোনীত প্রার্থীদের ভোট দিয়ে নির্বাচিত করলে পরীক্ষায় ফেল করলেও পাস করিয়ে দেয়া হবে। এছাড়া ফ্রিতে বনভোজনে নিয়ে যাওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে আসছেন তারা। এ ব্যাপারে ওই নির্বাচনের প্রিজাইডিং অফিসার মোঃ মোশারফ হোসেন জানান, কোন শিক্ষক এমনতো করার কথা নয়, যদি কেউ কারো পক্ষপাতিত্ব করে থাকে তাহলে আমাকে ওই শিক্ষকদের তালিকা দিন আমি ব্যবস্থা নেব।

এ জাতীয় আরো খবর

এমপিও’র দাবিতে অনার্স শিক্ষকদের জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে গেইটে অবস্থান কর্মসূচি

এমপিও’র দাবিতে অনার্স শিক্ষকদের জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে গেইটে অবস্থান কর্মসূচি

বাঘিয়া স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন নিয়ে চলছে লিটন মাস্টারের ভেলকিবাজি

বাঘিয়া স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন নিয়ে চলছে লিটন মাস্টারের ভেলকিবাজি

গুরুদাসপুরের নাজিরপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে জালিয়াতির অভিযোগ

গুরুদাসপুরের নাজিরপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে জালিয়াতির অভিযোগ

নাজিরপুর ডিগ্রি কলেজে অতি গোপনে জামাত নেতাকে অধ্যক্ষ পদে নিয়োগ চেষ্টার প্রতিবাদ

নাজিরপুর ডিগ্রি কলেজে অতি গোপনে জামাত নেতাকে অধ্যক্ষ পদে নিয়োগ চেষ্টার প্রতিবাদ

সেপ্টেম্বর মাসে বন্ধ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে চায় সরকার

সেপ্টেম্বর মাসে বন্ধ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে চায় সরকার

হাতীবান্ধায় সোনালী ব্যাংকে প্রধান শিক্ষক লাঞ্চিত

হাতীবান্ধায় সোনালী ব্যাংকে প্রধান শিক্ষক লাঞ্চিত